শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৫:০১ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
লুটপাট অনিয়ম অব্যবস্থাপনায় অস্থির পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হয়ে আজ রাতে যুক্তরাষ্ট্র যাচ্ছেন কাউন্সিলর আজাদ গোয়াইনঘাটে মাদক ব্যবসায়ী ও ওয়ারেন্টভূক্তসহ ৪ আসামি আটক ডিজিটাল পদ্ধতিতে ভাতা প্রদানের লক্ষে মতবিনিময় ভিসির পদত্যাগের দাবিতে উত্তাল বশেমুরবিপ্রবি ছাত্রলীগের পদপ্রত্যাশীদের লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা নেয়ার নির্দেশনা আইনমন্ত্রীর আফগানিস্তানে বিমান হামলায় নিহত ৩০ পাসপোর্টের নতুন ডিজি মেজর শাকিল জাবি ভিসিকে ‘ওয়ালাইকুম আসসালাম’ ভ্রাম্যমাণ বইমেলায় বইপ্রেমীদের ভিড় গফরগাঁওয়ে প্রাথমিক শিক্ষকদের মানববন্ধন আবার সৌদি আরব সফরে ইমরান খান ছাত্রদলের সভাপতি- সম্পাদককে শিবিরের অভিনন্দন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে  সাক্ষাত  করতে গন ভবনে যাচ্ছেন মুবিন সিদ্ধিরগঞ্জে মা ও দুই মেয়েকে গলা কেটে হত্যা




বেতন বৈষম্য নেই বলে অর্থ মন্ত্রনালয়ের পত্রে সারা দেশের প্রাথমিক শিক্ষকরা ক্ষুদ্ধ

বেতন বৈষম্য নেই বলে অর্থ মন্ত্রনালয়ের পত্রে সারা দেশের প্রাথমিক শিক্ষকরা ক্ষুদ্ধ



সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতন বাড়ানোর সুযোগ নেই বলে জানিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়। প্রাথমিকের শিক্ষকদের বিদ্যমান বেতন যথাযথ রয়েছে বলে জানানো হয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়কে। গত রোববার অর্থমন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত চিঠি গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়।

অর্থ মন্ত্রণালয়ে উপসচিব সাদিয়া শারমিন স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, ‘সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষক পদে বেতন গ্রেড যথাযথও সঠিক থাকায় প্রধান শিক্ষক পদের বেতন গ্রেড-১০ ও সহকারী শিক্ষক পদের বেতন গ্রেড-১২তে উন্নীতকরণের সুযোগ নেই।’

জানা গেছে, প্রাথমিক শিক্ষকদের দীর্ঘ আন্দোলনের পর গ্রেড পরিবর্তনের প্রস্তাবনা গত ২৯ জুলাই অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। শিক্ষকদের দাবির মুখে এ প্রস্তাবনায় প্রধান শিক্ষকদের দশম গ্রেড ও সহকারি শিক্ষকদের ১২তম গ্রেডে উন্নীত করার সুপারিশ করা হয়েছিল। যদিও সহকারি শিক্ষকদের দাবি ছিল ১১তম গ্রেডে বেতন ভাতা। তাই অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রস্তাবটি সমালোচিত হয়েছিল শিক্ষক মহলে।

বেতন বাড়ানোর প্রস্তাব অর্থ মন্ত্রণালয় প্রত্যাখ্যান করায় ক্ষুব্ধ সারা দেশের প্রাথমিক শিক্ষকরা। বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সহ কাব স্কাউট সম্পাদক মোহাম্মদ নাছিম ফারুকী দৈনিক শিক্ষাবার্তাডটকমকে বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের সংগঠন বাংলাদেশ প্রাথমিক সমিতি জাতির পিতার সুযোগ্য উত্তরসূরী জননেত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষকদের বেতন বৈষম্যের বিষয়ে ভয়েজ কলে আশ্বস্ত হয়ে দ্বিগুন আন্তরিকতা নিয়ে সারা দেশে নৌকা প্রতিকের পক্ষে কাজ করেছিরেন। আমরা শিক্ষকরা দীর্ঘ সময় ধরে প্রধান শিক্ষকের ১০ গ্রেড ও সহকারি শিক্ষকদের ১১তম গ্রেড দাবি করে আসছিলাম। আমরা সেই ১০ম ও ১১তম গ্রেডের দাবিতেই আছি। এ দাবি আদায়ে খুব শীঘ্রই সমিতির কেন্দ্রীয় নীতি নির্ধারক কমিটির সিদ্ধান্ত নিয়ে কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

image_print

সংবাদ শেয়ার করুন



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সংবাদদাতা প্রতিনিধি আবশ্যক অনলাইন

apply 




Translate:

জরুরি হটলাইন

ক্যালেন্ডার

সেপ্টেম্বর 2019
সোম বুধ বৃহ. শু. শনি রবি
« আগস্ট    
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
30  



Live Cricket

© All rights reserved © 2017 Uttarancholsylhet.com
 
Design & Developed BY TC Computer
Translate »