রবিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৯, ০৯:৫৩ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
স্বতন্ত্র প্রার্থী ভাইস চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন সালেহ আহমেদ প্রেমের টানে আপন চাচীকে সাথে নিয়ে পালিয়ে গেল ভাতিজা তালেবানের সঙ্গে বসবেন সৌদি যুবরাজ আগামী ২৪ ঘণ্টা বৃষ্টি থাকতে পারে রুস্তমপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন স্কুল ও ব্রিজের পরিদর্শন : বিশ্বজিত হেলাল আহমদের সমর্তনে আওয়ামীলীগের কর্মী সভা সংসদ নির্বাচন নিয়ে জাতীয় পার্টির মতবিনিময় ২৭ ফেব্রুয়ারি জামায়াত ক্ষমা চাইলেও বিচার বন্ধ হবে না: ওবায়দুল কাদের আসন্ন নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে গোয়াইনঘাটে প্রার্থীরা নির্বাচন চ্যালেঞ্জ করে বিএনপির ৭৪ প্রার্থীর মামলা জার্মানি পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৯ বছর পর ছাত্রলীগের সঙ্গে আড্ডায় ছাত্রদল ভালোবাসা দিবসে ক্যাটরিনাকে বিয়ে করছেন সালমান! ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ আরও একবার ইতিহাসের পাতায় নাম লেখালেন মাশরাফি বিন মুর্তজা
পোশাক খাতে মজুরি কাঠামোর সমস্যা চিহ্নিত

পোশাক খাতে মজুরি কাঠামোর সমস্যা চিহ্নিত

ঢাকা: পোশাক শ্রমিকরা যখন ‘বেতন বৈষম্য’ দূর করার দাবিতে টানা ৫ দিনের আন্দোলনে ব্যস্ত, তখন সচিবালয়ে বৈঠকে চিহ্নিত হয়েছে বেতন কাঠামোর সমস্যা।

ঢাকা: পোশাক শ্রমিকরা যখন ‘বেতন বৈষম্য’ দূর করার দাবিতে টানা ৫ দিনের আন্দোলনে ব্যস্ত, তখন সচিবালয়ে বৈঠকে চিহ্নিত হয়েছে বেতন কাঠামোর সমস্যা।

আন্দোলনের মুখে শ্রমিকদের বেতন বৈষম্য নিরসনে পর্যালোচনা কমিটির প্রথম বৈঠকের পর বৃহস্পতিবার এই কথা জানানো হয়। বৈঠক শেষে জানানো হয়, মজুরি কাঠামোর সাতটা গ্রেডের মধ্যে ৩, ৪ ও ৫ নম্বর গ্রেডেই মূলত সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে।

বৈঠকে পোশাক শিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর পাশাপাশি শ্রমিক প্রতিনিধি ও সরকারের পক্ষ থেকেও কর্মকর্তারা অংশ নেন। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ও কমিটির আহ্বায়ক আফরোজা খান।

এবারের মজুরি কাঠামোতে নূন্যতম মজুরি ধরা হয়েছে আট হাজার টাকা। দ্বিতীয় গ্রেডে ১৪ হাজার ৬৩০ টাকা, তৃতীয় গ্রেডে ৯ হাজার ৫৯০ টাকা, চতুর্থ গ্রেডে ৯ হাজার ২৪৫ টাকা, পঞ্চম গ্রেডে ৮ হাজার ৮৫৫ টাকা ও ষষ্ঠ গ্রেডে ৮ হাজার ৪০৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

শ্রমিকদের মধ্যে কথা ছড়িয়েছে যে, ২০১৩ সালের ডিসেম্বরে কার্যকর হওয়া মজুরি কাঠামোতে বার্ষিক পাঁচ শতাংশ বেতন বৃদ্ধির কথা বলা হয়েছিল। ওই হিসাব ধরা হলে এখন যত বেতন ধরা হয়েছে তাতে তাদের মজুরি আরো কমে যায়।

তৈরি পোশাকশিল্পের শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি আট হাজার টাকা নির্ধারণ করে গত ২৫ নভেম্বর গেজেট প্রকাশ করে সরকার। ডিসেম্বরের ১ তারিখ থেকে তা কার্যকর করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল সেখানে।

তখন শ্রমিকরা প্রতিক্রিয়া না দেখালেও গত ৩০ ডিসেম্বর ভোট শেষে নতুন সরকারের শপথের আয়োজনের মধ্যেই গত রবিবার রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে অবস্থান নিয়ে প্রথম বিক্ষোভে নামেন উত্তরার কয়েকটি পোশাক কারখানার শ্রমিকেরা। এরপর থেকে টানা চলছে বিক্ষোভ। শ্রমিকদের অভিযোগ, নতুন বেতন কাঠামোতে নানা বৈষম্য আর ত্রুটি আছে। এগুলোর সমাধান করতে হবে।

মঙ্গলবারই জরুরি বৈঠকে বসে সরকার, মালিক ও শ্রমিকপক্ষ। ঘোষণা আসে, মালিক ও শ্রমিকপক্ষের পাঁচজন করে এবং সরকারের বাণিজ্যসচিব ও শ্রমসচিবকে নিয়ে ১২ সদস্যের একটি কমিটি করার সিদ্ধান্ত হয়।

বৃহস্পতিবার এই কমিটির প্রথম বৈঠক হয় শ্রম মন্ত্রণালয়ে। বৈঠক শেষে সচিব আফরোজা খান বলেন, যেহেতু সমস্যা শনাক্ত হয়েছে সেহেতু সমস্যা সমাধান করা যাবে। আগামী রবিবার কমিটির বৈঠক আবার বসবে। ওই বৈঠকে চিহিৃত তিনটি গ্রেডের বিষয় সমাধানের চেষ্টা করা হবে।

সচিব মনে করেন পোশাক খাতে এই অস্থিরতার পেছনে অন্য কারণ আছে। বলেন, অর্থনীতির মূলভিত্তি হচ্ছে গার্মেন্টস খাত। এ খাতকে ধ্বংস করার জন্য একটি চক্র পেছন থেকে কলকাঠি নাড়ছে। মজুরি কাঠামোর চেয়ে বেশি বেতন দেওয়া হয় এমন একটি কারখানাও ভাঙচুর করা হয়েছে।

বৈঠকে এফবিসিসিআই সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান, সাবেক সভাপতি আতিকুল ইসলাম এবং আব্দুস সালাম মুর্শিদীও উপস্থিত ছিলেন।

image_print

সংবাদ শেয়ার করুন

মন্তব্য বন্ধ আছে।





ক্যালেন্ডার

ফেব্রুয়ারী 2019
সোম বুধ বৃহ. শু. শনি রবি
« জানু.    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728  



© All rights reserved © 2017 Uttarancholsylhet.com
 
Design & Developed BY TC Computer