শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৭:২৩ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
ফেসবুক বন্ধ করতে বললেন ট্রাম্প! ‘গ্লোবাল ক্লাইমেট স্ট্রাইক’ কর্মসূচির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ দুই মামলায় ১০ দিনের রিমান্ডে ফিরোজ সুযোগ-সুবিধা থাকা মানে এই না যা পেলাম তাই খেয়ে ফেললাম: সিইসি টানা ৩ বছর বড় বোনের হাতে ধর্ষণের শিকার গায়ক ক্যাসিনো নিয়ে এবার মুখ খুলল জামায়াত কলাবাগান ক্লাব সভাপতি শফিকুলকে নেয়া হচ্ছে আদালতে ধর্মের কল বাতাসে নড়ছে : ফখরুল গাজীপুরে রাস্তার ওপর লেগুনার স্ট্যান্ড সিলেট চেম্বার নির্বাচন: ২১ পরিচালক পদে ৪০ প্রার্থীর লড়াই নিউইয়র্কে বঙ্গবন্ধু বইমেলার বর্ণাঢ্য উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রী আবুধাবি পৌঁছেছেন এত বড় চমক আগে পাইনি: আইরিন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে আগামীকাল ভর্তি পরীক্ষা শুরু কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের সভাপতির বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদক আইনে মামলা




কুড়িয়ে পাওয়া কাগজ

কুড়িয়ে পাওয়া কাগজ



পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) সদস্য পরিচয় দিয়ে পাসপোর্ট ভেরিফিকেশনের নামে হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে টাকা। রাজধানীর আগারগাঁও থেকে এমন প্রতারক চক্রের দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পাসপোর্ট অফিসের আশপাশের ফটোকপির দোকানের ফেলে দেওয়া কাগজ থেকে তথ্য সংগ্রহ করে মানুষকে প্রতারিত করে আসছে চক্রটি।

গত ১৯ জুন রাত সাড়ে ১১টার দিকে শেরেবাংলা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে থেকে প্রতারণার অভিযোগে ইসতিয়াক হোসেন রুবেল (৩২) ও কামাল হোসেনকে (৩০) গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)

গোয়েন্দা পুলিশ জানায়, আটককৃতরা এক সময় পাসপোর্ট অফিসে দালাল হিসেবে কাজ করত। ভ্রাম্যমাণ আদালতে এদের একজনের ১৫ দিন এবং অপরজনের ১ মাসের জেল হয়েছিল। জেল থেকে বের হয়ে প্রতারণার কাজে নামে তারা।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, পাসপোর্ট ভেরিফিকেশনের জন্য কোনো টাকা লেনদেনের বিধান নেই।

জানা যায়, আগারগাঁও পাসপোর্ট অফিসের পাশে সারি সারি বেশ কিছু ফটোকপির দোকান রয়েছে। সেখানে জাতীয় পরিচয়পত্র থেকে শুরু বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কাগজ এবং পাসপোর্ট আবেদনের পূরণ করা ফরম ফটোকপি করেন সাধারণ মানুষ। কখনো প্রয়োজনের অতিরিক্ত কপি ফেলেও দেন কেউ কেউ। পুলিশের কাছে খবর ছিল এই ফেলে দেওয়া কাগজ কুড়িয়ে নিয়ে ভয়াবহ প্রতারণার ফাঁদ পাতে একটি চক্র।

সেই অনুযায়ী গত ১৯ জুন আগারগাঁও এলাকায় অবস্থান নেয় গোয়েন্দা পুলিশ। ওইদিন তাদের নজরে আসে কাগজ কুড়াচ্ছেন একজন। একই কাজ করতে দেখা যায় আরও একজনকে। তাদের ঘিরে পুলিশের সন্দেহ বাড়ে, বাড়ে নজরদারিও। এক পর্যায়ে দুজন এক হয়ে কুড়ানো কাগজ মেলাতে শুরু করলে হাতেনাতে ধরে ফেলা হয় তাদের। আটকের পর ডিবি উত্তরের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) বদরুজ্জামান জিল্লু জানান, তারা এসবির পরিচয় দিত। এই পরিচয়ে বিভিন্নজনের সঙ্গে প্রতারণা করত।পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করে যে, কুড়িয়ে নেওয়া কাগজ থেকে তথ্য তারা সংগ্রহ করে মানুষকে ফোন দিত। এসবি পরিচয়ে পাসপোর্টের ভেরিফিকেশনের নামে টাকা দাবি করত। আর টাকা না দিলে ভেরিফিকেশনে নেতিবাচক প্রতিবেদন দেওয়ারও ভয় দেখাত। তাদের আটকের আগে পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছিলেন; দুজন ভুক্তভোগী। তারা জানান, পাসপোর্টের আবেদন জমা দেওয়ার দুই দিনের মাথায় এসবি পরিচয়ে ফোন আসে তার কাছে। ভেরিফিকেশনের জন্য টাকা চাওয়া হয়। বিকাশের মাধ্যমে সেই টাকা শোধও করেন তারা। পরে আসল এসবি থেকে ফোন পেলে ভুল ভাঙে তাদের। এদের একজন মগবাজার নয়াটোলা চেয়ারম্যান গলির নুর এ হাসনাত অভিযোগ করে জানান, গত ২৮ মে তিনি নতুন পাসপোর্টের জন্য আবেদন জমা দেন। পরদিন বিকালে তার স্ত্রীর মোবাইলফোনে এসবির এসআই তরিকুল সাত্তার পরিচয়ে একজন কল দেন। নিজেকে পাসপোর্ট আবেদন ভেরিফিকেশনে দায়িত্বপ্রাপ্ত বলে জানান। ফোনে তিনি পাসপোর্ট ভেরিফিকেশনের জন্য তার কাছে সব কাগজপত্র আধাঘণ্টার মধ্যে জমা দিতে বলেন, অন্যথায় ভেরিফিকেশন সঠিক হবে না বলে জানান। কিছু সময়ের অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি তার মোবাইলের বিকাশ নম্বর পাঠিয়ে দেন। ওই নম্বরে প্রথমে তিনি ২ হাজার টাকা এবং পরে আরও ১৫শ টাকাসহ মোট ৩৫শ টাকা পাঠান। এ ঘটনার সপ্তাহখানেক পর গত ৯ জুন জোলেখা নামে এসবির এক এসআই মোবাইলে ফোন করে পাসপোর্ট আবেদনের বিপরীতে সব কাগজপত্র জমা দিতে বলেন। পরদিন কাগজপত্র নিয়ে এসবি অফিসে গিয়ে আগের ঘটনা ওই এসআইয়ের সঙ্গে আলোচনা করে বুঝতে পারেন যে, তিনি প্রতারণার শিকার হয়েছেন। সেখানে তিনি জানতে পারেন, তার মতো তামিম আক্তার, জোবাইদা আক্তার এবং লিটন নামে আরও তিনজন একইভাবে প্রতারিত হয়েছেন। পুলিশ জানায়, পাসপোর্ট অফিসের কাছে ফটোকপির দোকানে কোনো গুরুত্বপূর্ণ কাগজ ফটোকপির পর ফিরে আসার আগে ভালো করে দেখা উচিত, অতিরিক্ত কোনো কপি সেখানে ফেলে রেখে যাচ্ছেন কি না। অন্যথায় ফেলে দেওয়া সেই কাগজই হয়ে উঠতে পারে বড় ধরনের কোনো ফাঁদের হাতিয়ার।

(bd-news)

image_print

সংবাদ শেয়ার করুন



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সংবাদদাতা প্রতিনিধি আবশ্যক অনলাইন

apply 




Translate:

জরুরি হটলাইন

ক্যালেন্ডার

সেপ্টেম্বর 2019
সোম বুধ বৃহ. শু. শনি রবি
« আগস্ট    
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
30  



Live Cricket

© All rights reserved © 2017 Uttarancholsylhet.com
 
Design & Developed BY TC Computer
Translate »