মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯, ০২:১১ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
২৬ শে মার্চ , আমাদের দেশপ্রেম ও নতুন প্রজন্ম ময়মনসিংহ সিটির ভোট ৫ মে বাংলাদেশকে তীব্র অবজ্ঞা করলেন শহীদ আফ্রিদি থাইল্যান্ডে ফের জয়ের পথে সেনা সমর্থিত দল মুসলমানদের পাশে দাঁড়াতে সংহতি সমাবেশ নিউজিল্যান্ডে আতঙ্কে যুক্তরাষ্ট্র!বদলে যাচ্ছে তুরস্ক আজ এক মিনিট অন্ধকারে থাকবে দেশ সিলেটের যাত্রীদের দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস বিমানের টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্প কমিটির চেয়ারম্যান গুলিবিদ্ধ ভারতের হামলা, জাতীয় পতাকা কেন উল্টে রাখলো পাকিস্তানি সেনারা? নির্বাচনী র‌্যালিতে মন্ত্রীকে বেধড়ক মার ‘আতিয়া মহলে’ জঙ্গি বিরোধী অভিযানের দুই বছর: শীঘ্রই দেয়া হবে চার্জশীট সিকৃবি কর্তৃপক্ষের মামলার প্রস্তুতি,ওয়াসিম ‘হত্যা’ বাসচাপায় ওয়াসিম হত্যা: ফাঁকা সিকৃবির ক্লাসরুম, ক্লাস-পরীক্ষা স্থগিত প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার ফলাফল দেখুন সবার আগে, সাথে পরীক্ষার্থীর সম্পূর্ণ তথ্য সহ।




ঋণ খেলাপি ও অর্থপাচারকারীদের তালিকা প্রকাশ নির্দেশ

ঋণ খেলাপি ও অর্থপাচারকারীদের তালিকা প্রকাশ নির্দেশ



ঋণ খেলাপি ও অর্থপাচারকারীদের তালিকা প্রকাশ করতে বাংলাদেশ ব্যাংককে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে ঋণ দেয়ার ক্ষেত্রে অনিয়ম এবং দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে, টাকা উদ্ধারে কেন একটি কমিশন গঠন করা হবে না জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত। একটি রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি শেষে আজ বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এছাড়া গত ২০ বছরে সরকারি-বেসরকারি ব্যাংকের অনিয়ম কেনো ক্ষতিয়ে দেখা হবে না রুলে তাও জানতে চাওয়া হয়েছে। অর্থ সচিব, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর, সরকারি-বেসরকারি সব ব্যাংকের এমডিকে চার সপ্তাহের মধ্যে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ এবং রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এবিএম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ।

এর আগে গত ২৩ জুন মনজিল মোরসেদ ব্যাংকিং খাতে অনিয়মের তদন্ত ও তা বন্ধে সুপারিশ প্রণয়নের জন্য একটি কমিশন গঠনের দাবিতে লিগ্যাল নোটিশ পাঠান। বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর, মন্ত্রী পরিষদ সচিব, প্রধানমন্ত্রীর সচিবালয় সচিব, অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের সচিব, অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব এবং আইন মন্ত্রণালয় সচিবকে নোটিশটি পাঠানো হয়।

নোটিশে উল্লেখ করা হয়, কয়েক বছর ধরে সরকারি ও প্রাইভেট ব্যাংকের বিভিন্ন শাখা হতে হাজার হাজার কোটি টাকা বিভিন্ন উপায়ে আত্মসাৎ হচ্ছে। কিন্তু তা বন্ধে কার্যকরি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না। যদিও উক্ত অর্থ নাগরিকদের গচ্ছিত অর্থ। তাই নোটিশ অনুসারে আগামী ৭ দিনের মধ্যে ব্যাংকিংখাতে অনিয়মের বিষয় তদন্ত ও প্রতিরোধে সুপারিশ প্রণয়নের জন্য ১৯৫৩ সালের ইনকোয়ারি কমিশন অ্যাক্টের অধীনে একটি কমিশন গঠনের অনুরোধ জানানো হচ্ছে।

আর ওই কমিশন গঠনে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্ণর ড. সালাউদ্দিন আহমেদ, সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা এ বি এম মির্জা আজিজুল ইসলাম, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর খন্দকার ইব্রাহিম খালেদ, সিটি ব্যাংক এন এ বাংলাদেশের সাবেক সিইও মামুন রশিদ, বাংলাদেশ ব্যাংকের একজন প্রতিনিধি এবং অর্থ মন্ত্রণালয়ের একজন প্রতনিধি রাখতে বলা হয়। নোটিশের কোন জবাব না পেয়ে হিউম্যান রাইটস এন্ড পিস ফর বাংলাদেশের পক্ষে মনজিল মোরসেদ হাইকোর্টে রিট করেন। এ রিটের প্রাথীমক শুনানি নিয়ে উপরোক্ত আদেশ ও রুল জারি করেন।

image_print

সংবাদ শেয়ার করুন



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।




ক্যালেন্ডার

মার্চ 2019
সোম বুধ বৃহ. শু. শনি রবি
« ফেব্রু.    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031



© All rights reserved © 2017 Uttarancholsylhet.com
 
Design & Developed BY TC Computer