রবিবার, ২৪ মার্চ ২০১৯, ০৪:৪৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
তৃতীয় ধাপে ১১৭ উপজেলায় ভোট শুরু চন্দনাইশে ভোটকেন্দ্রে গুলি, পুলিশ সদস্য গুলিবিদ্ধ শিক্ষামন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি পেলে ক্লাসে ফিরবেন শিক্ষকরা শাবির ছাত্র হলে আগুন, প্রশাসনের উদাসীনতার অভিযোগ জেলা মহিলা আ.লীগ সভানেত্রী রুবি ফাতেমা অসুস্থ, ঢাকায় প্রেরণ আগুন ছোট আতঙ্ক বড় কাদের সম্পূর্ণ সুস্থ, কমানো হচ্ছে ঘুমের ওষুধ দেশের সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন ভোটের মাধ্যমে চেয়ারম্যান হলেন যারা উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে মানুষের ক্ষতি যেন না হয় : প্রধানমন্ত্রী বিচারপতির স্ত্রীর কাছে ঘুষ দাবি, পুলিশ কর্মকর্তার জেল বিরামপুরে একই রাতে ৭ স্থানে দুর্বৃত্তদের আগুন যে উপকার পাওয়া যায় সপ্তাহে ৬ মিনিট লাফালে দোকানের তালা ভেঙ্গে  শিবগঞ্জে ৪ লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরি দুই হাজার গাড়ি বহনকারী জাহাজ মহাসাগরে ডুবে গেছে ডিজিটাল কাম লইলিছইন ভাইসাব: আশফাককে ডালিম




আওয়ামী লীগ নেতা সৈয়দ আশরাফ আর নেই

আওয়ামী লীগ নেতা সৈয়দ আশরাফ আর নেই

বাংলাদেশে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এবং সাবেক মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম মারা গেছেন। তিনি ফুসফুসের ক্যান্সারে ভুগছিলেন। ব্যাংককের একটি হাসপাতালে তাঁর চিকিৎসা চলছিল।

বাংলাদেশে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এবং সাবেক মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম মারা গেছেন। তিনি ফুসফুসের ক্যান্সারে ভুগছিলেন। ব্যাংককের একটি হাসপাতালে তাঁর চিকিৎসা চলছিল।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ বিবিসি বাংলাকে জানান, ব্যাংকক সময় রাত সাড়ে নয়টায় সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম মারা যান। সেখান থেকে তাঁর ভাই অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল সৈয়দ শাফায়াতুল ইসলাম এ খবর জানিয়েছেন।

সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম শেখ হাসিনার মন্ত্রিসভায় স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। এবারের নির্বাচনেও তিনি কিশোরগঞ্জের একটি আসন থেকে নির্বাচিত হন।

মাহবুবুল আলম হানিফ জানিয়েছেন, আগামী শনিবার সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের মরদেহ বাংলাদেশে আনা হবে।

সৈয়দ আশরাফ ছিলেন বাংলাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম নেতা এবং মুজিবনগর সরকারের অস্থায়ী প্রেসিডেন্ট সৈয়দ নজরুল ইসলামের পুত্র।

১৯৭৫ সালে তার পিতাকে যখন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে আওয়ামী লীগের আরও তিন জন নেতার সঙ্গে হত্যা করা হয়, তারপর সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম লন্ডনে চলে যান।

১৯৯৬ সালে তিনি আবার দেশে ফিরে গিয়ে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় হন।

২০০৭ সালে বাংলাদেশে যখন জরুরী অবস্থা জারি করা হয়, তখন আওয়ামী লীগের এক সংকটকালে তিনি দলের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন।

image_print

সংবাদ শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।




ক্যালেন্ডার

মার্চ 2019
সোম বুধ বৃহ. শু. শনি রবি
« ফেব্রু.    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031



© All rights reserved © 2017 Uttarancholsylhet.com
 
Design & Developed BY TC Computer