বুধবার, ২১ অগাস্ট ২০১৯, ০৭:৫৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
প্রতিপক্ষের হামলায় ছাত্রলীগ নেতা আহত সড়ক নয় যেন জলাধার! শ্রীনগরে আজ খুলছে ১৯০ স্কুল সাত সপ্তাহ পর বৈঠকে মন্ত্রিসভা কাশ্মীরের আজাদি দাবিতে ঢাবিতে বিক্ষোভ মাদরাসার ‘প্রবলেমেটিক’ ম্যানেজিং কমিটি চিহ্নিত করার কাজ শুরু রাতে শিক্ষার্থীদের আড্ডা বন্ধে পুলিশের অভিযান উপবৃত্তি পাবে সংযুক্ত ইবতেদায়ি মাদরাসা শিক্ষার্থীরাও শোক দিবসের অনুষ্ঠানে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার নির্দেশ ১১টি ভারতীয় গরু আটক জৈন্তাপুরে বেড়াতে এসে ডেঙ্গুতে প্রাণ হারালেন প্রবাসী নারী গোয়াইনঘাট থানায় নবাগত ওসির যোগদান চাঁদ দেখা গেছে, ১২ আগস্ট ঈদ মদ খেয়ে শ্রেণিকক্ষেই ঘুমাচ্ছেন শিক্ষক বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে মাসব্যাপী রচনা প্রতিযোগিতা শুরু আগামীকাল




অসুস্থ অর্থমন্ত্রী, বাজেট উপস্থাপনে প্রধানমন্ত্রী

অসুস্থ অর্থমন্ত্রী, বাজেট উপস্থাপনে প্রধানমন্ত্রী



 শুরু হয়েছে ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট উপস্থাপন। এটি দেশের ৪৮তম এবং বর্তমান সরকারের তৃতীয় মেয়াদের প্রথম বাজেট। ‘সমৃদ্ধ আগামীর পথযাত্রায় বাংলাদেশ : সময় এখন আমাদের, সময় এখন বাংলাদেশের’ শিরোনামে প্রস্তাবিত বাজেটের আকার ধরা হয়েছে পাঁচ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকা। দেশের ৪৮ বছরের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় বাজেট এটি।

বৃহস্পতিবার বেলা ৩টায় স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশন শুরু হয়। বরাবরের মতো বাজেট পেশ করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। নতুন অর্থমন্ত্রী হিসেবে এটি তার প্রথম বাজেট। যদিও গত সরকারের পরিকল্পনামন্ত্রী হিসেবে অনেক বাজেট প্রণয়নে পরোক্ষভাবে জড়িত ছিলেন তিনি।

শুরুতে দাঁড়িয়ে বাজেট বক্তৃতা শুরু করলেও পরে স্পিকারের অনুমতি নিয়ে অর্থমন্ত্রী নিজ আসনে বসে প্রস্তাবিত ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট উপস্থাপন করেন। কিন্তু বিকেল ৪টার পর অসুস্থ অর্থমন্ত্রীর পক্ষে প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপনে অসুবিধা বোধ করলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রস্তাবিত বাজেটের বাকি অংশ নিজে সংসদে উপস্থাপনের জন্য স্পিকারের অনুমতি চান।

এর আগে বাজেট উপস্থাপনকালে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, ‘আমি যতটুকু পড়তে পেরেছি বাকিটুকু মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করছি। উনি পড়ে দেবেন।’

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, মাননীয় স্পিকার আমারও অপারেশন, আমার মন্ত্রীরও অপারেশন। তার উপরে ঠান্ডা লেগে কিছুটা গলা সমস্যা। তারপরও পড়ি।

স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী প্রধানমন্ত্রীকে প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপনের অনুমতি দেন। প্রধানমন্ত্রী দাঁড়িয়ে না বসে বাজেট বক্তৃতা উপস্থাপন করবেন- এমন প্রস্তাব জানালে স্পিকার বসে উপস্থাপনের অনুমতি দেন এবং প্রথমবারের মতো একজন প্রধানমন্ত্রীকে প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপনের জন্য ধন্যবাদ জানান।

বিকেল ৪টা ১৩ মিনিটের দিকে প্রস্তাবিত বাজেট বক্তৃতার একপর্যায়ে ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি’- এমন একটি অংশ এলে প্রধানমন্ত্রী সেটা পড়েন এবং হেসে ফেটে পড়েন। এ সময় উপস্থিত সংসদ সদস্যরাও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে হাস্যরসে মেতে ওঠেন।

স্পিকার এ সময় প্রস্তাবিত বাজেটের যেসব অংশে ‘প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি’ অংশ উল্লেখ আছে তা পাঠ করার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ জানান।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অসুস্থ অর্থমন্ত্রীর স্থলে প্রধানমন্ত্রী প্রস্তাবিত ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট সংসদে পেশ করছিলেন।

প্রস্তাবিত বাজেট পাস হবে ৩০ জুন। ১ জুলাই থেকে শুরু হবে নতুন অর্থবছর।

এর আগে মন্ত্রিসভা ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের অনুমোদন দেয়। বাজেট ঘোষণার আগে দুপুর ১টার একটু পর জাতীয় সংসদ ভবনে বিশেষ বৈঠকে মন্ত্রিসভা এ অনুমোদন দেয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে জাতীয় সংসদ ভবনে মন্ত্রিসভার এ বিশেষ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

অসুস্থ থাকার কারণে আসতে দেরি হওয়ায় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালকে ছাড়াই মন্ত্রিসভার বৈঠক শুরু হয়। পরে অর্থমন্ত্রী অ্যাপোলো হাসপাতাল থেকে সরাসরি বৈঠকে যোগ দেন।

চলতি অর্থবছর মূল বাজেটের আকার দাঁড়ায় চার লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকা। তবে লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী, রাজস্ব আদায় করতে না পারা এবং উন্নয়ন প্রকল্পে পরিকল্পনা অনুযায়ী অর্থ খরচ করতে না পারায় চলতি অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটের আকার নির্ধারণ করা হয় চার লাখ ৪২ হাজার ৫৪১ কোটি টাকা। অর্থাৎ আগামী বাজেটের আকার সংশোধিত বাজেট থেকে ৮০ হাজার ৬৪৯ কোটি টাকা বেশি

image_print

সংবাদ শেয়ার করুন



মন্তব্য বন্ধ আছে।




ক্যালেন্ডার

আগস্ট 2019
সোম বুধ বৃহ. শু. শনি রবি
« জুলাই    
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031  



© All rights reserved © 2017 Uttarancholsylhet.com
 
Design & Developed BY TC Computer